শুক্রবার , ৭ আগস্ট ২০২০
Menu
সর্বশেষ সংবাদ
Home » কোভিড-১৯ » শামসুর রহমান বৃত্তি পেল সিলেটের ১৫০ শিক্ষার্থী : দেশের সামগ্রিক উন্নতির জন্য দক্ষ ও প্রশিক্ষিত লোকের প্রয়োজন – ড. মোমেন

শামসুর রহমান বৃত্তি পেল সিলেটের ১৫০ শিক্ষার্থী : দেশের সামগ্রিক উন্নতির জন্য দক্ষ ও প্রশিক্ষিত লোকের প্রয়োজন – ড. মোমেন

20170108_115447-600x338বাংলা সংলাপ ডেস্কঃজাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশ সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে খুবই ভালো করছে। বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যেও দেশটি দারিদ্র্য বিমোচনে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। এই সাফল্য ধরে রাখতে আমাদের শিক্ষিত ও উন্নত প্রশিক্ষিত লোকের প্রয়োজন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ দেশের উন্নতি-এদেশের লোকজনকে দিয়েই করতে হবে।
গতকাল রোববার সকালে নগরীর শহীদ সুলেমান হলে শামসুর রহমান প্রাথমিক ও জুনিয়র বৃত্তি বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এবার সিলেট বিভাগের ১৫০ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সুফি সুহেল আহমদের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন-বাংলাদেশ ডেভেলপম্যান্ট ব্যাংকের চেয়ারম্যান সৈয়দ এফতার হোসেন পিয়ার, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, যুক্তরাজ্যস্থ গোলাপগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্টের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল হক জিলু ও ট্রাস্টের সাবেক সহ-সভাপতি মাইজ উদ্দিন আহমদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন-ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব জিবলু রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-যুব সংগঠক মোহাম্মদ আব্দুল জব্বার, অধ্যক্ষ মো: শাহাবুদ্দিন শিহাব, কবি সিদ্দিক আহমদ, কচি সম্পাদক লুৎফুর রহমান তোফায়েল, গীতিকার মাহমুদ শিকদার প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন নাট্যকার আফজাল হোসেন।
20170108_120345-600x338অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল মুকিত অপি, চ্যানেল এস এর সিলেট ব্যুরো প্রধান মঈন উদ্দিন মনজু, গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার বার্তার উপ-সম্পাদক ফয়ছল আলম প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. একে আব্দুল মোমেন বলেন, শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা বিজয়ের জাতি। আমরা চাইলেই ইপ্সিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারি। ‘আই কেন ডু’(আমরাও পারি)-এই প্রত্যয় নিয়ে শিক্ষার্থীদের সামনের পানে এগিয়ে যেতে হবে।
শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের প্রশংসা করে ড. মোমেন বলেন, ফাউন্ডেশনটি গত ১৭ বছর ধরে মানুষকে শিক্ষিত করার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের এ কার্যক্রম অনেকটা সদকায়ে জারিয়ার মতো। তাদের পদাঙ্ক অনুসরণ করলে শিক্ষাক্ষেত্রে সিলেট আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
প্রসঙ্গত, এ বছর ১৮ তম শামসুর রহমান বৃত্তি বিতরণ করা হয়।

আরও দেখুন

Getting tested for coronavirus is the best way for us all to get back to doing the things we love

Bangla sanglap desk: A new campaign, ‘Let’s Get Back’, has launched focusing on how testing …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *